Tuesday, October 4, 2022
spot_imgspot_img

মাদক মামলায় ফের আদালতে পরীমনি

রাজধানীর বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা মামলায় হাজির হয়েছেন ঢালিউড সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা পরীমনি। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় তিনি ঢাকায় বিশেষ জজ-কোর্ট -১ এর বিচারক নজরুল ইসলামের আদালতে হাজির হন।

এদিন মামলার বাদী র‌্যাব-১ এর কর্মকর্তা মজিবর রহমানের সাক্ষ্যের জেরার কারনে দিন ধার্য রয়েছে। তিনি আদালতে উপস্থিত হয়েছেন। তাকে পরীমনির আইনজীবী জেরা করবেন।

গত ১২ মে সকাল ১০টায় ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-১০ এর বিচারক নজরুল ইসলামের আদালতে গিয়ে পরীমনি হাজিরা দেন। এইদিন পরীমনিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য দিন ধার্য করা হয়েছিল। তবে আদালতে কোনো সাক্ষী উপস্থিত হননি। অন্যদিকে পরীমনির আইনজীবী ব্যক্তিগত হাজিরা মাফ চেয়ে আবেদন করেছেন। আদালত আবেদনটি নথিভুক্ত করে এ বিষয় শুনানির জন্য ২ জুন ধার্য করেন। এছাড়া মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের জন্যও এই একই দিন ধার্য করেছেন।

তারও আগে ২৯ মার্চ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য দিন ধার্য ছিল। তবে সেইদিন পরীমনি অসুস্থ ছিলেন বিধায় আদালতে উপস্থিত হতে পারেননি। তার পক্ষে আইনজীবী সুরভী সময়ের আবেদন করেছিলেন। এই একই সময় অন্য দুই আসামিও আদালতে উপস্থিত হন। এছাড়া আসামি পক্ষের আইনজীবী আপিল ডিভিশনের আবেদনের কপি আদালতে দাখিল করেছেন। এরপর ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-১০ এর বিচারক নজরুল ইসলাম সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ১২ মে দিন ধার্য করেন।

তবে মাদক মামলায় নায়িকা পরীমনিকে সশরীরে আদালতে উপস্থিত হতে হবে না। তার শারীরিক অবস্থা বিবেচনায় নিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকার বিশেষ আদালত-১০ এর বিচারক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম এ আদেশ দেন। এদিন পরীমনির আইনজীবী সুরভী এ বিষয়ে আদালতের আদেশ চেয়ে আবেদন করেছিলেন।এর আগে সুরভী বাদীকে জেরা করেন।জেরা শেষ হবার পর আদালত,পরবর্তী শুনানির তারিখ নির্ধারণ করেন আগামী ১৯ জুলাই।

গত বছরের ৪ আগস্ট অভিযান চালিয়ে, পরীমনিকে তার বনানীর বাসা থেকে আটক করেছিলেন র‌্যাব। অভিযানে নতুন মাদক এলএসডি, মদ ও আইস উদ্ধার করা হয়। তার ড্রয়িংরুমের কাভার্ড, শোকেস, বেডরুমের সাইড টেবিল এমনকি টয়লেট থেকে বিপুল পরিমাণ মদের বোতল উদ্ধার করা হয়। তার পরদিন গত ৫ আগস্ট র‍্যাব বাদী হয়ে রাজধানীর বনানী থানায় পরীমনি ও তার সহযোগী বিপুর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলায় দায়ের করে।

গত ১ মার্চ ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-১০ এর বিচারক নজরুল ইসলামের আদালতে মামলার বাদী র‌্যাব-১ এর কর্মকর্তা মজিবর রহমান সাক্ষ্য দেন। এর মধ্য দিয়ে এ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়।

চলতি বছরের ৫ জানুয়ারি আদালত অব্যাহতির আবেদন খারিজ করে আসামি পরীমনিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচারের আদেশ দেন। ২০২১ সালের ৪ অক্টোবর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক কাজী মোস্তফা কামাল আদালতে পরীমনিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আমাদের ফলো করুন

2,258FansLike
1,069FollowersFollow
1,569FollowersFollow
- Advertisement -spot_img

আরোও পড়ুন